Advertise top
আদালত-অপরাধ

বরিশালে প্রিজন সেলে আসামি খুন

বরিশাল নিউজ

প্রকাশ : ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:২৭ পিএম

বরিশালে প্রিজন সেলে আসামির হাতে আসামি খুন
শেবাচিম হাসপাতালে প্রিজন সেলে নিহত তরিকুল সিকদারের স্বজনরা। ছবি:সংগৃহীত

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের প্রিজন সেলে হত্যা মামলার আসামি মোতাহার হোসেনকে পিটিয়ে হত্যা করেছে তরিকুল সিকদার (২৫) নামে অপর এক আসামি। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অজিত কুমার মণ্ডল (৪০) নামের অপর এক আসামি।

 

হাসপাতালের জরুরি বিভাগ সংলগ্ন প্রিজন সেলে আজ  রবিবার, ১৪ এপ্রিল ভোরে এ হামলার ঘটনা ঘটে। দুপুরে আহত মোতাহার হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। হতাহত তিনজনই বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারের হাজতি।

 

আসামী তরিকুল মানসিক ভারসাম্যহীন বলে জানান শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. এইচ এম সাইফুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘হাসপাতালের জরুরি বিভাগ সংলগ্ন দুটি কক্ষে নারী এবং পুরুষ আসামিদের ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়। কক্ষ সংকটের কারণে মানসিক ভারসাম্যহীন এবং স্বাভাবিক রোগীদের এক কক্ষে রেখেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল।

 

ঘটনার সময় ভোর রাতে মানসিক ভারসাম্যহীন আসামি তরিকুল সিকদার বাথরুম থেকে প্রিজন সেলে এসে স্যালাইনের স্ট্যান্ড দিয়ে অপর আসামি মোতাহার ও অজিতের মাথায় আঘাত করে। এতে তারা দুজনই গুরুতর আহত হন। পরে মোতাহারের মৃত্যু হয়। লোহার রডের আঘাতে মাথায় রক্তক্ষরণের কারণে তার মৃত্যু হতে পারে বলে জানান ডা. সাইফুল ইসলাম।

 

নিহত মোতাহার হোসেন (৬৭) বরগুনার বেতাগী উপজেলার বুড়ামজুমদার গ্রামের মৃত রফিজ উদ্দিনের ছেলে। জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে একটি হত্যা মামলায় গ্রেপ্তারের পর কিডনি রোগ এবং স্ট্রোকজনিত সমস্যার কারণে গত ৩ এপ্রিল তাকে শেবাচিমে ভর্তি করা হয়।

 

এ ছাড়া অভিযুক্ত তরিকুল সিকদার (২৫) পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার কলাগাছিয়া গ্রামের মোশারেফ সিকদারের ছেলে। মানসিক রোগের চিকিৎসার জন্য গত ৬ এপ্রিল তাকে হাসপাতালের প্রিজন সেলে ভর্তি করা হয়।

 

আহত মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার বাসিন্দা মাদক মামলার আসামি অজিত কুমার মণ্ডলকে গত ৬ এপ্রিল ভর্তি করা হয়।


 


মন্তব্য লিখুন


Ish Brand

সর্বশেষ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সম্পাদক ও প্রকাশক: শাহীনা আজমীন ।। স্বত্ব © বরিশাল নিউজ ২০২৪

Developed By NextBarisal