বরিশালের কৃতি সন্তান প্রখ্যাত সাংবাদিক মিজানুর রহমান খান আর নেই

বরিশালের কৃতি সন্তান, প্রখ্যাত সাংবাদিক মিজানুর রহমান খান (৫৩) আর নেই । ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে রাজধানীর ইউনিভার্সেল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তিনি প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক ছিলেন।

 মিজানুর রহমান খান গত ২৭ নভেম্বর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। প্রথমে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেন তিনি। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায় সেখান থেকে গত ১০ ডিসেম্বর তাঁকে মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রেখে চিকিৎসা করা হয়। শনিবার বিকালে নেওয়া হয় লাইফ সাপোর্টে।

মৃত্যুকালে তিনি মা, স্ত্রী, এক পুত্র, এক কন্যা, পাঁচ ভাই ও তিন বোনসহ অসংখ্য গুনগ্রাহি রেখে গেছেন।

 দেশের প্রখ্যাত এই গনমাধ্যম শিরমনির পেশাগত পথচলা শুরু হয় বরিশালের খ্যাতনাম আঞ্চলিক দৈনিক একাত্তরের মুখপাত্র নামে পরিচিত দৈনিক বিপ্লবী বাংলাদেশ ও দক্ষিণাঞ্চল পত্রিকার মাধ্যমে।

বরিশালের বিএম কলেজ থেকে হিসাববিজ্ঞান বিভাগে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনকারী মিজানুর রহমান খান তিন দশক ধরে দাপটের সাথে সাংবাদিকতা করেছেন। সংবিধান ও আইন নিয়ে লেখালেখিতেও রেখেছেন পারদর্শিতার নিদর্শন । তার উল্লেযোগ্য বইয়ের মধ্যে সংবিধান ও তত্ত্বাবধায়ক সরকার বিতর্ক, ১৯৭১: আমেরিকার গোপন দলিল অন্যতম।

 দেশ বরেন্য এই সাংবাদিক বরিশালের নলছিটিতে জন্মগ্রহন করেন। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা জীবন নলছিটিতেই কেটেছে তার ।

বরিশাল প্রেসক্লাবের শোক

তাঁর মৃত্যুতে বরিশাল প্রেসক্লাবের সভাপতি মানবেন্দ্র বটব্যাল ও সাধারণ সম্পাদক এস.এম জাকির হোসেনসহ সকল সদস্যবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

 নেতৃবৃন্দ মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

বরিশাল নিউজ / ডেস্ক নিউজ