লেখনির মধ্যেই বেচে থাকবেন মিজানুর রহমান খান

বরিশালের কৃতি সন্তান দেশ বরেন্য সাংবাদিক প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান খান   লেখনির মাধ্যমে সাংবাদিক অঙ্গণসহ সব মহলের মাঝে বেচে থাকবেন বলেছেন বরিশালের সাংবাদিকরা।

দৈনিক বিপ্লবী বাংলাদেশ পত্রিকার উদ্যোগে শুক্রবার বরিশাল প্রেসক্লাবের মাইনুল হাসান মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত শোকসভায় এ কথা বলেন তারা।

সভায় সভাপতিত্ব করেন  দৈনিক বিপ্লবী বাংলাদেশ পত্রিকার সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আলম ফরিদ। মিজানুর রহমান খান বরিশালে পড়ালেখার পাশাপাশি দৈনিক বিপ্লবী বাংলাদেশে প্রথম সাংবাদিকতা করেন। 

শোকসভায় বক্তারা বরিশালের কৃতি সন্তান মিজানুর রহমানের  স্থান অপূরনীয় বলে অভিহিত করেন। এ সময় মিজানুর রহমানের সংবিধান ও আইন নিয়ে লেখালেখির পারদর্শিতার নিয়ে কথা বলেন সিনিয়র সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

শোক সভায় বক্তৃতা করেন সিনিয়র সাংবাদিক মানবেন্দ্র বটব্যাল, এসএম ইকবাল, নজরুল ইসলাম চুন্নু, সাংবাদিক মিজানুর রহমান খানের চাচা ফিরোজ আলম খান, তপংকর চক্রবর্তী, আমজাদ হোসাইন, কাজী মিরাজ মাহামুদ, গোপাল সরকার, সৈয়দ দুলাল, অপূর্ব অপুসহ আরও অনেকে।

গত ২৭ নভেম্বর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন মিজানুর রহমান খান। ১০ ডিসেম্বর তাঁকে মহাখালীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রেখে চিকিৎসা করা হয়। শনিবার বিকালে নেওয়া হয় লাইফ সাপোর্টে। ১১ জানুয়ারী তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

তার উল্লেযোগ্য বইয়ের মধ্যে “সংবিধান ও তত্ত্বাবধায়ক সরকার বিতর্ক, ১৯৭১: আমেরিকার গোপন দলিল অন্যতম।

 বরিশালের নলছিটিতে জন্ম নেয়া দেশ বরেন্য এই সাংবাদিক বরিশাল সরকারি বিএম কলেজ থেকে হিসাববিজ্ঞান বিভাগে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

বরিশাল নিউজ/স্টাফ রিপোর্টার