মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় ফতুল্লা তিতাসের ৮ কর্মকর্তা কর্মচারী গ্রেপ্তার, ২ দিনের রিমান্ডে

নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম তল্লা বাইতুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণ ও হতাহতের ঘটনায় তিতাসের আট কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি পুলিশ। পরে তাদের দুই দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে।

শনিবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয় সিআইডির নারায়ণগঞ্জ শাখা অফিসে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান সিআইডির দায়িত্বপ্রাপ্ত ডিআইজি মাইনুল হাসান।

গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন- তিতাসের ফতুল্লা অঞ্চলের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো. সিরাজুল ইসলাম, উপ-ব্যবস্থাপক মাহমুদুর রহমান রাব্বি, সহকারী প্রকৌশলী এসএম হাসান শাহরিয়ার, সহকারী প্রকৌশলী মানিক মিয়া, সিনিয়র সুপারভাইজার মো. মুনিবুর রহমান চৌধুরী, সিনিয়র উন্নয়নকারী মো. আইউব আলী, হেলপার মো. হানিফ মিয়া, কর্মচারী মো. ইসমাইল প্রধান।

ডিআইজি মাইনুল হাসান আরও জানান, গ্রেফতারকৃতরা সবাই মাঠ পর্যায়ে দায়িত্ব পালন করেছেন। বিস্ফোরণের ঘটনায় প্রাথমিক তদন্তে তাদের দোষ প্রমাণ পাওয়া গেছে। এ কারণে শনিবার সকালে তাদের নিজ নিজ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডের আবেদন করে আজই আদালতে পাঠানো হবে বলেও জানান ডিআইজি মাইনুল হাসান।

শনিবার ,১৯ সেপ্টেম্বর বিকালে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাউসার আলমের আদালতে ৮ জনকে অধিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদনের জন্য পাঠানো হয়। পরে তাদের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। 

উল্লেখ্য, গত ৪ সেপ্টেম্বর রাতে এশার নামাজ চলাকালে পশ্চিম তল্লা বাইতুস সালাত মসজিদে বিস্ফোরণ হয়।

এ ঘটনায় দগ্ধদের মধ্যে ৩৭ জনকে উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। একজন চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফিরেছেন। তবে বাকি তিনজনের শারীরিক অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

বরিশার নিউজ / ডেস্ক নিউজ