বরিশালে ৪৪ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

করোনা প্রতিরোধে সরকারের ১৮ দফা বাস্তবায়নে নগরীতে চারটি মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করেছে জেলা প্রশাসন। এই সময় ৪৪ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়।

করোনা সংক্রমণ রোধে সোমবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য সারা দেশে লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার।

বরিশাল জেলা প্রশাসন কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, লকডাউন কার্যকর করতে সোমবার সকাল থেকে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নাজমুল হুদা, মো. আতাউর রাব্বী ও মো. মারুফ দস্তগীর এর নেতৃত্বে নগরীর লঞ্চঘাট, সদর রোড, হাসপাতাল রোড, নতুন বাজার, নথুল্লাবাদ বাসস্ট্যান্ড, কাশীপুর বাজার, চৌমাথা, বটতলা বাজার, জিলা স্কুল মোড়, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে ও আমতলার মোড়ে মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালিত হয়।

এসময় মাস্ক না পড়া এবং অপ্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের হওয়াসহ স্বাস্থ্যবিধি লংঘনের দায়ে আট ব্যক্তি এবং অপ্রয়োজনে দোকান খোলা রেখে আড্ডাবাজী করার অপরাধে ছয়টি প্রতিষ্ঠান ও ৭ জন ব্যক্তিকে ১১ হাজার ৮৮০ টাকা জরিমানা আদায় করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নজমুল হুদার ভ্রাম্যমান আদালত।

এছাড়া অপর একটি অভিযানে পাঁচ ব্যক্তিকে তিন হাজার দুই শত টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আতাউর রাব্বী এবং আরও ১৩ ব্যক্তিকে ২ হাজার একশত টাকা জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মারুফ দস্তগীর।

অপরদিকে, ‘বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার  আগৈলঝাড়া বাজার, বাইপাস সড়ক, গৈলা বাজার, রথখোলা বাজার, দাসের হাট, নিমতলা বাজার, পয়সারহাট বাজারে মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করে উপজেলা প্রশাসন। এসময় সেখানকার ১১টি প্রতিষ্ঠান ও দু’জন ব্যক্তিকে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ১০ হাজার চারশত টাকা জরিমানা করা হয়।

বরিশাল জেলা এবং আগৈলঝাড়া উপজেলা প্রশাসন পরিচালিত পৃথক চারটি মোবাইল কোর্ট অভিযানে আইন-শৃঙ্কলা রক্ষার কাজে সহযোগিতা করেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ এবং বরিশাল র‌্যাব-৮ ও আগৈলঝাড়া থানা পুলিশের পৃথক তিনটি টিম।

জরিমানার পাশাপাশি এক হাজার মাস্ক ও ৩শ হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেন তারা।

বরিশাল নিউজ/ স্টাফ রিপোর্টার