করোনার কিট উৎপাদন করবে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র

বরিশাল নিউজ।। করোনা ভাইরাস পরীক্ষার কিট উৎপাদনের অনুমতি পেয়েছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। এর প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছেন আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে এই কিট বাজারজাত করা হতে পারে।

তিনি বলেন, ‘সরকারের ওষুধ প্রশাসন করোনা ভাইরাস শনাক্তের কিট উৎপাদনের অনুমতি দিয়েছে। এই কিট তৈরির কাঁচামাল আসবে ইংল্যান্ড থেকে। কাঁচামাল আসলে এক সপ্তাহের মধ্যে আমরা প্রোডাকশনে যেতে পারবো। দুই সপ্তাহের মধ্যে এটা বাজারে আসতে পারে। প্রথম দফায় এক লাখ কিট উৎপাদন করা হবে। ১০ লাখ টাকার কাঁচামাল লাগবে। প্রতিটি কিটের দাম হতে পারে ২০০ টাকার মতো। তবে এই কিট সরকারের কাছে বিক্রি করা হবে, জনসাধারণের কাছে নয়।’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র জানায়, গণস্বাস্থ্য-আরএনএ বায়োটেক লিমিটেডের গবেষক দল ফেব্রুয়ারি থেকে এই কিটের ডিজাইন এবং উৎপাদন প্রক্রিয়া নিয়ে কাজ করছেন। এ প্রযুক্তির ব্যাপারে পুরো গবেষক দলের সরাসরি কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে। এর আগে ২০০৩ সালে র‍্যাপিড ডট ব্লট সার্স পিওসি কিট তৈরি দলের সদস্য ছিলেন ড. বিজন কুমার শীল। ওই কিটটি সিঙ্গাপুরে পেটেন্ট করা হয়েছিল। এবার করোনার কিট তৈরির জন্য গঠিত গবেষক দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিজন কুমার।

তারা আরও জানায়, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ তাদের নিজেদের প্রয়োজনে দ্রুত করোনা ভাইরাসের কিট তৈরি করেছে। কোভিড-১৯ মোকাবিলায় রোগ শনাক্তের জন্য বাংলাদেশে আবিষ্কৃত রোগ নির্ণয় প্রক্রিয়ার জন্য নতুন পথ তৈরি করে দেওয়াটা খুব জরুরি বলে মনে করে গণস্বাস্থ্য।

উল্লেখ্য, স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যমতে, বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৭। এই ভাইরাসে আক্রান্ত একজনের মৃত্যু হয়েছে।