করোনায় দেশের মৃত্যুহারকে ছাড়ালো বরিশাল

বরিশালে বিভাগে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬৯ জনে। যার শতকরা হার ২ দশমিক ০৭ শতাংশ । বরিশাল বিভাগে মৃত্যুর এই শতকরা হার জাতীয় শতকরা হারের চেয়ে বেশি। বাংলাদেশে মৃত্যুর শতকরা হার ১ দশমিক ৪২ শতাংশ।  

মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে রয়েছেন বরিশাল জেলায় ৬৭ জন, পটুয়াখালীতে ৩৭, ভোলায় ৬, পিরোজপুরে ২৩, বরগুনায় ২০ এবং ঝালকাঠীতে ১৬ জন ।

এদিকে বরিশাল বিভাগে গত দুই দিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুন বেড়ে গেছে। এ সময়ে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ৫৬ জন । এ নিয়ে বিভাগের ছয় জেলায় আক্রান্তের সখ্যা দাঁড়ালো ৮১৮৫ জন।

হটস্পট বরিশাল নগরী

মৃত্যুবরনকারীদের মধ্যে বেশি বরিশাল সিটি করপোরেশনের বাসিন্দা।  বরিশাল সদর উপজেলাসহ ১০ উপজেলায় সব মিলিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন ৩৩ জন। আর শুধু মাত্র সিটি করপোরেশন এলাকায় মৃত্যুবরণ করেছেন ৩৪ জন।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের দেওয়া তথ্য থেকে গেছে বরিশাল সদর উপজেলায় মারা গেছেন চারজন। মুলাদীতে তিনজন,বাকেরগঞ্জে দুইজন,গৌরনদীতে পাঁচজন,বাবুগঞ্জে চারজন,বানারীপাড়ায় তিনজন,উজিরপুরে পাঁচজন,মেহেন্দীগঞ্জে একজন,আগৈলঝাড়ায় পাঁচজন এবং হিজলা উপজেলায় মারা গেছেন একজন।

বরিশাল জেলায় মৃত্যুবরণকারী ৬৭ জনের মধ্যে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন ৬০ জন। বাড়ীতে মারা গেছেন দুইজন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মারা গেছেন তিনজন। এছাড়া ঢাকায় চিকিৎসা নিতে গিয়ে মারা গেছেন দুইজন।

বরিশাল জেলায় গত দুই দিনে (২০ ও ২১ সেপ্টেম্বর) ২৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এর আগের দিন আক্রান্ত হন ১১ জন। এদেরসহ জেলায় করোনা আক্রান্ত সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৩৪১৯ জন ।

বরিশাল জেলায় গত ১২ এপ্রিল প্রথম করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়। এরপর থেকে সদর উপজেলা ও সিটি করপোরেশন এরাকায় ২৫০৮ জন, বাবুগঞ্জ উপজেলায় ১১৭ জন, উজিরপুর উপজেলায় ১৬৬ জন, বাকেরগঞ্জ উপজেলায় ১৩২ জন, মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলায় ৫১ জন, হিজলা উপজেলায় ৫৫ জন, বানারীপাড়া উপজেলায় ৮১ জন, মুলাদী উপজেলায় ৮৫ জন, গৌরনদী উপজেলায় ১২৬ জন, আগৈলঝাড়া উপজেলায় ৯৮ জন করে মোট ৩৪১৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

বিভাগের ছয় জেলায় সুস্থ হয়েছেন ৭১২৩ জন। এরমধ্যে বরিশাল জেলায় মোট সুস্থ হয়েছেন ৩০৬৯ জন ।

বরিশাল নিউজ /স্টাফ রিপোর্টার