কলাপাড়ায় নববধুর আত্মহত্যা

স্বামীর সাথে তার বিয়ের ছবি
স্বামীর সাথে তার বিয়ের ছবি

কলাপাড়া নউিজ।। বিয়ের তিন মাস না যেতেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক নববধু। পটুয়াখালীর কলাপাড়া থানা পুলিশ সোমবার রাত ১১টায় নিহত মিতা মন্ডলের (১৮) ঝুলন্ত মরদহে উদ্ধার করেছে। নিহত গৃহবধু কলাপাড়া পৌর শহরের চিংগড়িয়া এলাকার সুভাস হাওলাদারের ভাড়াটিয়া উন্নয়ন সংস্থা টিএমএসএস এর ম্যানেজার গৌতম হাওলাদারের স্ত্রী।

সোমবার সন্ধার পর স্বামী ঘরে না থাকায় সে আত্মহত্যা করে বলে প্রতিবেশী ও নিহত গৃহবধুর স্বামী জানায়।

ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, মাত্র এক মাস আগে এই ভাড়া বাসায় ওঠে মিতা ও গৌতম দম্পতি। দুইজনের সংসারে ঠিকমতো ঘরটি এখনও গোছানোও হয়নি। বিয়েতে উপহার পাওয়া শাড়ি, গহনা ও বিভিন্ন প্রসাধনী এখনও ট্রলি ব্যাগ থেকে বের করা হয়নি। রান্না ঘরের এক কোনে রাখা আগামী কালের রান্না করার জন্য কেটে কচুর শাখ, মাছ ভাজা। রাইচ কুকারে রান্না করা দুপুরের ভাত সেভাবেই পড়ে আছে।

গৃহবধুর স্বামী গৌতম হাওলাদার বলেন, গত ২১ জুন পারিবারিকভাবে মিতার সাথেতার ধুমধাম করে বিয়ে হয়। গত মাসে স্বামী- স্ত্রী এ ভাড়া বাসায় ওঠে। চাকুরীর কারনে গত মাসে স্ত্রীকে নিয়ে এসে এই ভাড়া বাড়িতে ওঠেন। সোমবার রাত নয়টার দিকে তার কাকী শ্বাশুড়ীর সাথে মুঠোফোনে কথা বলতে বলতে বাসায় এসে দেখেন ভিতর থেকে দড়জা বন্ধ। কয়েকবার ডা দিলেও মিতার সাড়া না পেয়ে ঘরের পিছনের জানালা থেকে দেখেন মিতার মৃতদেহ ঝুলছে ঘরের আড়ার সাথে। সাথে সাথে প্রতিবেশীদের নিয়ে পিছনের দড়জার ছিটকানি ভেঙ্গে মিতার মৃতদেহ নামান। কিন্তু এর আগেই সে মারা যায়। কী কারনে সে আত্মহত্যা করেছে তার কোন কারনই বলতে পারছেন না সে।

কলাপাড়া থানার ওসি(তদন্ত) আসাদুর রহমান জানান, স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করেন। লাশের সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারন জানা যাবে। এ ঘটনায় থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।

বরশিাল নিউজ/রাজু