বধ্যভূমিতে রেস্টুরেন্ট; আন্দোলনে মুক্তিযোদ্ধা-সংস্কৃতিজনরা

বধ্যভূমিতে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিস্তম্ভ ঘেষে গড়ে ওঠা রেস্টুরেন্টের স্থাপনা-বরিশাল নিউজ
বধ্যভূমিতে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিস্তম্ভ ঘেষে গড়ে ওঠা রেস্টুরেন্টের স্থাপনা-বরিশাল নিউজ

বরিশাল নিউজ।। বরিশালের বধ্যভূমি সংলগ্ন সরকারি জায়গায় রেস্টুরেন্টের স্থাপনা নির্মাণ করায় এখানকার মুক্তিযোদ্ধা ও সাংস্কৃতিক অঙ্গণে বিরুপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। ঐ রেস্টুরেন্ট উচ্ছেদের দাবিতে এখন আন্দোলন শুরু করেছেন তারা।
আন্দোলনকারীদের নেতৃস্থানীয় একজন এই প্রতিবেদককে বলেন, বধ্যভূমির জায়গায় ২৩ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ঐ স্থাপনাটির মালিক আকতার ফারুক শাহিন। বরিশাল টেলিভিশন মিডিয়া এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও বরিশাল জাতীয় দৈনিক ব্যুরো চীফদের সংগঠনের সভাপতি তিনি। শাহীন জাতীয় দৈনিক পত্রিকা যুগান্তর এবং বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভির ব্যুরো প্রধান।

স্থাপনা উচ্ছেদে জেলা প্রশাসকের সাথে দেখা করেন ড. মুনতাসির মামুনসহ অন্যরা-বরিশাল নিউজ
স্থাপনা উচ্ছেদে জেলা প্রশাসকের সাথে দেখা করেন ড. মুনতাসির মামুনসহ অন্যরা-বরিশাল নিউজ

আন্দোলনকারীরা রেস্টুরেন্ট উচ্ছেদের দাবিতে সেপ্টেম্বরের পাঁচ তারিখে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন। আর আজ শনিবার বঙ্গবন্ধু অধ্যাপক ড. মুনতাসির মামুনের নেতৃত্বে ফের দেখা করেছেন জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমানের সাথে।
সেই বৈঠক শেষে ড. মুনতাসির মামুন সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবাহী এমন একটি পবিত্র স্থানে কোনো ধরণের বানিজ্যিক স্থাপণা নির্মান করা অসম্মানজনক । এবিষয়ে হাইকোর্ট ও সুপ্রিমকোর্টের নিষেধ রয়েছে। সেজন্য ঐ স্থাপণা উচ্ছেদে জেলা প্রশাসককে অনুরোধ করেছি।’’
জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ‘‘কে বা কারা ঐ স্থাপণা নির্মাণ করছেন তা আপনারা (সাংবাদিকরা) তদন্ত করে বের করেন । নিউজ করেন। আমরা এ বিষয়ে দ্রুতই পদক্ষেপ নিচ্ছি।’’

নির্মিত স্থাপনাটি-বরিশাল নিউজ
নির্মিত স্থাপনাটি-বরিশাল নিউজ

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, স্মৃতিস্তম্ভের পাশেই গড়ে ওঠা স্থাপনাটির রংয়ের কাজ শেষে এখন বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ চলছে।
এদিকে আন্দোলনকারীদের একজন কাজল ঘোষ সাংবাদিকদের বলেন,‘‘বধ্যভূমির ঐ জায়গায় বরিশালের অনেক মানুষের প্রিয়জনের স্মৃতি রয়েছে। তারা এখনও সেখানে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধে শহীদ তাদের স্বজনদের উপস্থিতি টের পান। এর আগে শুধু এই কারণে সেখানে জনকল্যানমূলক সাইলো নির্মাণ ঠেকিয়ে দিয়েছি আমরা। কিন্তু জুলাইয়ে সমাপ্ত বরিশাল সিটি নির্বাচনী ব্যস্ততার ফাঁকে গড়ে তোলা হয় রেস্টুরেন্টের এই স্থাপনা।’’
স্থাপনাটি উচ্ছেদের দাবিতে আগামী ১১ সেপ্টেম্বর বরিশাল অশ্বিণী কুমার হলের সামনে মানববন্ধন হবে বলে জানান কাজল ঘোষ।