নদী পারাপারে ভোগান্তি

সন্ধ্যা নদীর বাগধায় ঝুঁকি নিয়ে নদী পারাপার-বরিশাল নিউজ

বরিশাল নিউজ।। বরিশালের আগৈলঝাড়ার সন্ধ্যা নদীর বাগধায় ঝুঁকি নিয়ে নদী পারাপার করছেন শিক্ষার্থীরা। খেয়ার মাধ্যমে নদী পার হতে গিয়ে ভোগান্তি বাড়ছে তাদের। পাশের উজিরপুর, বানরীপাড়া উপজেলা হয়ে আগৈলঝাড়া উপজেলার পয়সারহাট, বাগধা ও আমবৌলা গ্রামের মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া সন্ধ্যা নদীর উপর পয়সারহাটে একমাত্র ব্রীজ থাকলেও সহজ যোগাযোগের জন্য উপজেলার বাগধা ও আমবৌলা গ্রামের লোকজন খেয়া মাধ্যমেই পার হয় নদীর এপার থেকে ওপার। এছাড়াও নদীর পশ্চিম পারে একাধিক স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসাসহ স্থানীয় হাট-বাজার থাকায় নদীর পূর্ব পারের শিক্ষার্থী ও লোকজনের যাতায়াতের একমাত্র ভরসা হলো খেয়া বা নৌকা।
এই খেয়া পার হতে সময় লাগে ১০ থেকে ১৫ মিনিট। অন্যদিকে পয়সারহাটে ব্রীজ ঘুরে যাতায়াতে তাদের সময় লাগে ৪০ থেকে ৫০ মিনিট। তাই তারা এখানে একটি ব্রীজ নির্মাণের দাবি জানিয়ছেন।
এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী রাজ কুমার গাইন বলেন, বাগধা খেয়া ঘাটে একটি সেতু নির্মানের জন্য বরিশাল এলজিইডি অফিসে প্রস্তাব করা হয়েছে। ইতোমধ্যে বরিশাল এলজিইডি অফিস থেকে ওখানকার মাটি পরক্ষীসহ সব ধরণের পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষ হয়েছে। টেন্ডার আহ্বানের প্রক্রিয়া চলছে।
বরিশাল নিউজ/শামীম