‘আদৌ কি পাব কাঙ্ক্ষিত শিক্ষাব্যবস্থা’

জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০; আদৌ কি পাব কাঙ্ক্ষিত শিক্ষাব্যবস্থা’ শীর্ষক মতবিনিময় সভা করেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, বরিশাল জেলা ও মহানগর শাখা । নগরীর কীর্তনখোলা মিলনায়তনে ১৫ নভেম্বর, সোমবার এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বলা হয় সম্প্রতি প্রণীত জাতীয় শিক্ষাক্রম নিয়ে ২০১৭ সাল থেকে কাজ শুরু হলেও শিক্ষাক্রম প্রণয়নে শিক্ষক-শিক্ষানুরাগী, বিশেষজ্ঞ, শিক্ষাবিদ ও ছাত্র সংগঠনের প্রতিনিধিদের যুক্ত করা হয়নি।

সভায় আরও বলেন, নতুন এই শিক্ষাক্রমে বিজ্ঞান শিক্ষাকে সংকুচিত করে কারিগরি শিক্ষায় কিছু দক্ষ শ্রমিক উৎপাদনের পরিকল্পনা করা হয়েছে। এর মধ্যে দিয়ে সচেতন শিক্ষিত মানুষের বদলে স্বল্পশিক্ষিত শ্রমিক তৈরি হবে। কোচিং বাণিজ্য বন্ধ না করে শিক্ষকদের হাতে ৩০ থেকে ৭০ ভাগ নম্বর রেখে শিখনকালীণ মূল্যায়নের উদ্যোগও হবে ছাত্রস্বার্থবিরোধী এবং অযৌক্তিক। এছাড়াও দশম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পরপর তিনটি পাবলিক পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে যা ছাত্রদের উপর বাড়তি চাপ সৃষ্টি করবে।

বক্তারা এই গনবিরোধী শিক্ষাক্রম বাতিল করে ছাত্র-শিক্ষক সর্বস্তরের মানুষের মতামতের ভিত্তিতে গণমুখী শিক্ষাক্রম প্রনয়নের দাবি জানান।

সভায় বরিশাল মহানগর শাখার প্রচার-প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক বিজন সিকদার সভাপতিত্ব এবং শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ শাখার সংগঠক আনন্দ মৃত্তিকা নাজ সঞ্চালনা করেন।

 সভায় উপস্থিত ছিলেন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল কাদেরী জয়, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ শাহ্ সাজেদা, সরকারি মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মোঃ আবদুল মোতালেব হাওলাদার, বাকবিশিস বরিশাল বিভাগের আহবায়ক মোঃ জলিলুর রহমান, বাকেরগঞ্জ ইসলামিয়া মহিলা কলেজের প্রভাষক এইচ মুজাফফর ইমন, বাসদ বরিশাল জেলার আহবায়ক ইমরান হাবীব রুমন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ মনীষা চক্রবর্তী, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ব্রজমোহন কলেজ শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজুর রহমান রাকিব প্রমুখ।

বরিশাল নিউজ/ স্টাফ রিপোর্টার