সবুজ বেষ্টনীর গাছ কাটছে বনদস্যুরা

বরগুনার আমতলী উপজেলায় সবুজ বেষ্টনীর গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছে বনদস্যুরা। তবে এ ব্যাপারে বন বিভাগে অভিযোগ জানিয়ে কোন লাভ হচ্ছে না জানান এলাকাবাসী।

স্থানীয়দের অভিযোগ গুলিশাখালী ইউনিয়নের আঙ্গুলকাটা এলাকার তিন কিলোমিটার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের সবুজ বেষ্টনীর গাছ শুধু রাতেই নয়,দিনে কেটে নিয়ে যাচ্ছে বনদস্যুরা । বন বিভাগসহ প্রভাবশালীদের নির্দেশে এমনটা ঘটছে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

গুলিশাখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বলেন, বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধে সৃজিত সবুজ বেষ্টনীর গাছ কাটা অন্যায়। আমি এ গাছ কাটতে কাউকে নির্দেশ দেইনি।

আমতলী উপজেলা বন কর্মকর্তা ফিরোজ কবির বলেন, গাছ কাটার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বাবলা ও আকাশমনি গাছের কাটা ৭৪ সিএফটি কাঠ উদ্ধার করা হয়েছে।

পটুয়াখালী বন বিভাগের ডিএফও মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

১৯৬৭ সালে পানি উন্নয়ন বোর্ড গুলিশাখালী ইউনিয়নকে বন্যা জলোচ্ছ্বাস ও পায়রা নদীর ভাঙন থেকে রক্ষায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ নির্মাণ করে। ১৯৮৮ সালে বন বিভাগ বাঁধের দুই পাশে সবুজ বেষ্টনী গড়ে তোলে। 

বরিশাল নিউজ/ আমতলী