মামলার বাদীর বিরুদ্ধেই হত্যার অভিযোগ

ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়নে রুমন বিশ্বাসের হত্যাকারী নিজেই মামলার বাদী হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন এক বিবাদীদের স্বজন ।

 হত্যাকান্ড থেকে নিজেকে আড়াল করতে নিহত রুমনের মা ও সৎ ভাইকে বাদী না করে চাচাতো ভাই মিঠু বিশ্বাস মামলার বাদী হয়ে ফাসাচ্ছেন বলে তারা সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন।

 বরিশাল প্রেসক্লাবের মাইনুল হাসান মিলনায়তনে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

গত ৩ জানুয়ারী সন্ধ্যায় নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়নে রুমন বিশ্বাসকে হত্যা করা হয়। এই ঘটনায় গত ৪ জানুয়ারি ২২জনকে আসামী করে এ্‌কটি হত্যা মামলা দায়ের করে রুমনের চাচাতো ভাই মিঠু বিশ্বাস।

সংবাদ সম্মেলনে রুমন হত্যাকান্ডের ঘটনা পরিকল্পিত দাবি করেন মামলার প্রধান আসামীর বোন মারুফা আক্তার পপি।

লিখিত বক্তব্যে মারুফা আক্তার পপি বলেন, গত ৩ জানুয়ারী নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়নে র্বমন বিশ্বাসকে জবাই করে হত্যা করেছে ওই এলাকার নুরুল হক হাওলাদারের ছেলে বাপ্পি। এই কথাটা গণমাধ্যমের সামনে প্রকাশ্যে বলেছে নিহত রুমনের মা। অথচ রুমন হত্যা মামলায় বাপ্পিকে ৪ নম্বর আসামী করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনের এক লিখিত বক্তব্যে মারুফা আক্তার পপি বলেন, রুমন হত্যা মামলায় আমার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা আইয়ুব আলী হাওলাদার, আমার ভাই আল মামুন এবং আমার ছেলে জিহাদকে ফাঁসাতে মামলার আসামী করা হয়েছে। তারা কেউই এই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত না। পূর্ব শত্র্বতা ও জমি বিক্রির টাকার ভাগ না পেয়ে এলাকার ভুমিদস্যু ও জমির দালাল মিঠু বিশ্বাস ও আজিজ বিশ্বাস আমার ভাইকে এই মামলায় প্রধান আসামী করেছে।

তিনি আরো বলেন, রুমন হত্যা মামলায় তার মা মামলার বাদী না হয়ে হত্যাকারী মিঠু বিশ্বাস নিজেকে আড়াল করতে মামলার বাদী হয়েছে। পাশাপাশি ওই মামলায় রুমনের মাকে সাক্ষী করা হয়েছে। এছাড়াও প্রকাশ্যে যে হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটলো সেই ঘটনায় মিঠু বিশ্বাসের পরিবারের তিনজনকে স্বাক্ষী রাখা হয়েছে। এলাকার অন্যকোন লোক এই মামলায় স্বাক্ষী নেই।

এসময় তিনি আরো বলেন, মামলা দায়েরের পর তার বাবা , ভাই , ছেলে পলাতক রয়েছে। প্রাণের ভয়ে নিজেরাও বাড়িতে যেতে পারছেননা। রুমন হত্যার বিচার দাবি করেন তিনি বলেন, আমরাও এই হত্যাকান্ডের বিচার চাই। তবে যারা অপরাধের সাথে যুক্তনা তাদের বাদ দিয়ে প্রকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হোক। এজন্য তিনি প্রশাসনের কাছে মামলাটি সুষ্ঠ তদন্তের দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপসি’ত ছিলেন, আল মামুনের বোন আফরোজা খানম লাকি, আল মামুনের স্ত্রী জুথি প্রমুখ।

বরিশাল নিউজ/স্টাফ রিপোর্টার