প্রধানশিক্ষককে পেটালো ম‌্যানেজিং কমিটির সভাপতি

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় গৈয়াতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামসুদ্দিনকে (৫০) শুক্রবার,৮ জানুয়ারি বিকালে চেয়ার দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছেন ওই স্কুলের ম‌্যানেজিং কমিটির সভাপতি হান্নান মিয়া।

বিদ্যালয়ের লাইব্রেরিতে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক ওই শিক্ষককে উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহত শিক্ষক সামসুদ্দীন বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হান্নান খানের ভাই হামিদ খান স্কুলের একটি কক্ষ দখল করে পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছেন। বিষয়টি বেশ কয়েকবার সভাপতিকে জানালেও তিনি কোনো পদক্ষেপ নেননি। আজ জুমার নামাজের পর বিদ্যালয়ে বসে উপবৃত্তির তালিকা তৈরি করছিলাম। এসময় সভাপতি হান্নান খান এসে তার ভাইয়ের দখলকৃত স্কুলের কক্ষে কেন বিদ্যুতের লাইন দেওয়া হয়নি তা জানতে চান। এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে কক্ষে থাকা চেয়ার দিয়ে পিটিয়ে জখম করেন। এতে বাম হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কেটে রক্তাক্ত হয়েছে।

স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হান্নান খান বলেন, মসজিদে জুমার নামাজের সময় স্কুলের মাঠে থাকা মসজিদের বালু রাখা নিয়ে প্রধানশিক্ষকের সঙ্গে মসজিদের মুসুল্লীদের কথা কাটাকাটি হয়। পরে এ বিষয়ে তিনি জানতে গেলে প্রধানশিক্ষক উত্তেজিত হয়ে চেয়ার দিয়ে আমাকে মারধর করার চেষ্টা করেন। এতে আমি আহত হই। প্রধানশিক্ষকও আহত হন।

কলাপাড়া থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বরিশাল নিউজ/কলাপাড়া