কুয়াকাটায় ৬ তলা থেকে পড়ে চীনা নাগরিকের মৃত্যু


কলাপাড়া (পটুয়াখালী) নিউজ।। পটুয়াখালীর কুয়াকাটার হোটেল সিকদার রিসোর্ট অ্যান্ড ভিলার ছয়তলা ভবনের ওপর থেকে পড়ে চীনা নাগরিক লি-চিং (৩২) মারা গেছেন।  লি-চিং তালতলী উপজেলায় বাংলাদেশ-চায়নার যৌথ মালিকানায় বাস্তবায়নাধীন কয়লা ভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিজনেস ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। খবর পেয়ে কলাপাড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও মহিপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন এবং মৃতদেহ উদ্ধার করেন।


সিকদার রিসোর্ট অ্যান্ড ভিলা সূত্রে জানা গেছে, লি-চিং সিকদার রিসোর্টের উত্তর দিকের ভিলার ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন। গত বছরের নভেম্বর মাসে তিনি এ কক্ষে এসে উঠেন। কুয়াকাটা থেকে তালতলীতে গিয়ে দাপ্তরিক কাজ করতেন। দুপুরের দিকে তিনি রিসোর্টের লবিতে যান। এরপর চারতলায় ৫১২ নম্বর কক্ষে যান। এ কক্ষে তাঁর এক বাংলাদেশী সহকর্মী থাকেন। হঠাৎ হোটেলের কর্মচারীরা ছয়তলা ভবনের সামনের দিকে ওপর থেকে কিছু নিচে পড়ার শব্দ শুনতে পায়। দৌড়ে গিয়ে দেখেন লি-চিং পড়ে আছে। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে।


কলাপাড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহম্মেদ আলী বলেন, লাশের সুরতহাল করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ পটুয়াখালী পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পর তাঁর মৃত্যুর কারন জানা যাবে। লি-চিংয়ের পাসপোর্ট থেকে জানা গেছে, তাঁর বাড়ি চীনের বেইজিং শহরের হেইলংজিয়াং এলাকায়।


কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু হাসনাত মোহাম্মদ শহিদুল হক বলেন, “করোনার কারণে গত ১৮ মার্চ থেকে কুয়াকাটা লকডাউন করা হয়েছে। সেখানে কোনো পর্যটক বা বিদেশীর থাকার কথা নয়। তিনি কীভাবে লকডাউন উপেক্ষা করে রিসোর্টটিতে অবস্থান করলেন এবং ওই রিসোর্টটির কর্তৃপক্ষ কীভাবে তাঁকে থাকার সুযোগ দিল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।”


বরিশাল নিউজ/কলাপাড়া