কচা নদীতে ড্রেজিং দাবি

পিরোজপুরের কচা নদীর অনেক স্থানে ডুবোচর পড়ায় আটকে যাচ্ছে নৌযান । ফলে যাত্রীরা পড়ছেন দুর্ভোগে।  কচা নদীর নাব্য সংকট দূর করতে দ্রুত ড্রেজিং করার দাবি জানিয়েছেন টগড়া-চরখালী ফেরি রুটে চলাচলকারী যাত্রী ও নৌযান চালকরা।

ভুক্তভোগী ও সংশ্লিষ্টরা জানান, চরখালী-টগড়া ফেরি রুট দিয়ে প্রতিদিন ঢাকাসহ দক্ষিণাঞ্চলের ১২টি রুটের যান চলাচল করে। প্রায় ৪ কিলোমিটার দীর্ঘ এ নদীটি পার হতে বছরের অন্যান্য সময় ২০ থেকে ২৫ মিনিট সময় লাগলেও, শীত মৌসুমে এ চিত্র পুরো উল্টো। শীত মৌসুমে নদীতে পানি কমে যাওয়ায় প্রায়ই ফেরি আটকা পড়ে ডুবোচরে। নদীর প্রায় অর্ধেকটাজুড়েই রয়েছে ডুবোচর। এতে প্রায়ই ঘণ্টার পর ঘণ্টা ফেরি আটকে থাকে নদীর মাঝখানে। যতক্ষণ নদীতে জোয়ার না আসে, ততক্ষণ অপেক্ষা করতে হচ্ছে। মাঝ নদীতে ফেরি আটকে থাকায় ট্রলারযোগে নদী পারাপার করতে হয়।

বরিশাল নিউজ/ পিরোজপুর