হাতের আঙুলের চিকিৎসার জন্য ব্যাংককে অবস্থানরত সাকিবের আগামী দুই সপ্তাহের আগে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে ওঠার সম্ভাবনা খুব কম। তার ডাক্তাররা তাকে অন্তত দুই সপ্তাহ ফিজিওথেরাপি দেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। এবং সেটা থাইল্যান্ডে থেকেই। তাই নিদাহাস ট্রফিতে তার মাঠে নামার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ ।
এদিকে সাকিব ব্যাংককের ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে বোর্ডের সঙ্গে কথা বলেছেন। এখন বোর্ড সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছে, থেরাপি কি ব্যাংককে না দেশে এনে দেয়া হবে। অথবা দলের সঙ্গে শ্রীলঙ্কা নিয়ে সেখানে থেরাপি দেয়া। যাতে সুস্থ হলে মাঠে নামতে পারে।
বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশিস বলেছেন, থেরাপি দিতেই হবে। তবে সেটা ১৪ দিন, ১০ দিন নাকি ৭ দিন সেটা সাকিবের আঙুলের অগ্রগতির উপর নির্ভর করবে। তবে থেরাপি পর্ব শেষ হবার পর আরও কয়েকদিন লাগবে তার অবস্থা পর্যবেক্ষণের জন্য। তার মানে যদি অন্তত ১০ দিনও থেরাপি দিতে হয়, তারপরও সাকিবের মাঠে নামতে দুই সপ্তাহ লাগবে।
প্রসঙ্গত নিদাহাস ট্রফিতে বাংলাদেশের শেষ খেলা ১৬ মার্চ। সেক্ষেত্রে শেষ ম্যাচে তার সার্ভিস পেতে পারে বাংলাদেশ। তার আগে নয়।