জানুয়ারি ৪, ২০২৩

সাকিব আল হাসানের চাকুরিতে যোগদান!

বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডারের সাকিব আল হাসান চাকরিতে যোগ দিয়েছেন। প্রতিষ্ঠানের নাম গালফ অয়েল বাংলাদেশ লি.। পদ  প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ।   তবে এই দায়িত্ব নিয়েছেন তিনি শুধুমাত্র একদিনের জন্য। দিনটি বুধবার,৪ জানুয়ারি ২০২৩।

 কেন?

মূলত গালফ অয়েলের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর সাকিব আল হাসান। কোম্পানির প্রচারের জন্যই মূলত এ অভিনব আয়োজন। এ সময় নিজের অনুভূতি জানতে চাইলে সাকিব গণমাধ্যমকে বলেন, প্রথম বার এরকম একটা দায়িত্বশীল পদে এলাম। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ধরনের চ্যালেঞ্জ এসেছে, এই চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করাই একটি বড় মজার বিষয়। আমার কাছে এই ধরনের চ্যালেঞ্জ ভালো লাগে। চেষ্টা করব ভালো কাজের মাধ্যমে এই কোম্পানিকে আরও সামনে নিয়ে যাওয়ার।

সেখানে কাজ কী?

সিইও হিসেবে প্রথম কী কাজ করবেন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি হেসে বললেন, অম্লান দা-কে (অম্লান মিত্র, সিইও গালফ অয়েল বাংলাদেশ) ফায়ার করলাম। এ রকম পজিশনে কাজ করতে হলে আগে থেকে কাজগুলো বিশ্লেষণ করে আসতে হয়। আসলে এরকম একটি কোম্পানিতে সবার মতামত নিয়েই কাজগুলো করা হয়। তো, আমিও সবার সম্মতি নিয়েই সিদ্ধান্তগুলো নেব।

ভবিষ্যতে সত্যিকার অর্থেই এই ধরনের প্রতিষ্ঠানের সিইও হওয়ার স্বপ্ন দেখেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে সাকিব বলেন, এখন পর্যন্ত ক্রিকেট নিয়েই স্বপ্ন আছে। যখন তা শেষ হবে, তখন নতুন স্বপ্ন দেখা শুরু করব। 

গালফ ওয়েল এর আইডিয়া

ঠিক কী কারণে সাকিবের ওপর এমন দায়িত্ব হস্তান্তর করা হলো- এমন প্রশ্নের জবাবে গালফ ওয়েল বাংলাদেশ লি. এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অম্লান মিত্র বলেন, সাকিব রোজই দলের সিইও হয়ে মাঠে নামেন। তো একদিন এই অবস্থানে বসে দেখুক, এখানে কেমন চাপ আছে। এটি একটি আইডিয়া। 

তিনি অঅরও বলেন, গত চার বছর ধরে সাকিব আমাদের কোম্পানির একটি অংশ। করোনা মহামারিসহ এত দুর্যোগের পরও আমরা অভূতপূর্ব প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছি। তিনি (সাকিব) আমাদের সৌভাগ্যের প্রতীক। পাশাপাশি আমাদের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর। আমাদের এই অফিসটা নতুন। এখানে তিনি আগে আসেননি। চাচ্ছিলাম সাকিব যেন এই অফিসটা দেখেন। এক মাস আগে আমরা এই অফিসটা নিই, তিনি তখন ছিলেন না। 

পরে সাকিব গালফ অয়েলের অফিস ঘুরে দেখেন এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

বরিশাল নিউজ/ ডেস্ক নিউজ

Subscribe to the newsletter

Fames amet, amet elit nulla tellus, arcu.