মার্চ ২০, ২০১৮

বিসিসিতে ১ মাসের অচলাবস্থার অবসান

জেলা প্রশাসনের মধ্যস্থতায় বরিশাল সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের একমাস দুই দিনের কর্ম বিরতি স্থগিত করা হয়েছে। দুই মাসের বকেয়া বেতন ও তিন মাসের প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা পরিশোধ এবং পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে অন্যান্য বকেয়া পরিশোধের আশ্বাস পেয়ে কাজে যোগ দিয়েছেন আন্দোলনকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।
বরিশাল সার্কিট হাউস ও নগর ভবনে দুই দফা বৈঠকের পর এই অচলাবস্থার অবসান হয়। বরিশালের জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান বলেন, উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে মঙ্গলবার সকালে বরিশাল সার্কিট হাউজে সিটি মেয়র ও কাউন্সিলরদের প্রতিনিধি এবং আন্দোলনরত কর্মকর্তা কর্মচারীদের সাথে বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসনের ত্রিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে দুই মাসের বকেয়া বেতন এবং তিন মাসের প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা পরিশোধ করার সিদ্ধান্ত হয়।
পরে নগর ভবনে মঙ্গলবার বেলা ১২টায় সিটি মেয়র আহসান হাবিব কামাল এর অফিসে জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমানের উপস্থিতিতে বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ ২০ মার্চ দুই মাসের বকেয়া বেতন এবং তিন মাসের প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা পরিশোধ করে। বাকী বেতন পর্যায়ক্রমে পরিশোধ করা হবে বলে জানায়।
এ সময় মেয়র কামাল বলেন, সিটি করপোরেশনের তহবিলে যথেস্ট পরিমান অর্থ নেই। ধার দেনা করে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন দেয়া হচ্ছে। মেয়র রাজস্ব আদায়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আরও বেশী মনযোগী হওয়ার নির্দেশ দেন। এছাড়া নগরীর বিভিন্ন স্থানে জমে থাকা ময়লা-আবর্জনা দ্রুত অপসারণের জন্য সংশ্লিষ্ঠদের নির্দেশ দেন মেয়র কামাল।

স্থায়ী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ৬ মাসের বকেয়া বেতন ও ২৩ মাসের প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা এবং অস্থায়ী শ্রমিক-কর্মচারীদের ৩ মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে গত ১৮ ফেব্রয়ারী থেকে নগর ভবনে অবস্থান এবং কর্মবিরতি পালন করেনো কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। বকেয়ার পরিশোধের দাবিতে অবস্থান এবং কর্মবিরতি ছাড়াও মুখে কালো কাপড় বেঁধে মানববন্ধন, কালো পতাকা বিক্ষোভ এবং ঝাড়ু মিছিল করে আন্দোলনকারীরা।
এছাড়াও মেয়র, কাউন্সিলর এবং জেলা প্রশাসকের সাথে একাধিকবার বৈঠক হলেও সমঝোতা হয়নি। মঙ্গলবারের সমঝোতার পর পরই সিটি করপোরেশনের হিসেব বিভাগ সহ সকল শাখার তালা খুলে দেয় আন্দোলনকারীরা। পরে স্ব-স্ব দপ্তরে কাজে যোগ দেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।
বরিশাল নিউজ/এমএম হাসান

Subscribe to the newsletter

Fames amet, amet elit nulla tellus, arcu.