এপ্রিল ২৭, ২০১৮

”প্রাথমিকের পাঠ্যবইয়ে ২০১৯ সালের মধ্যে বিভ্রাট থাকবে না”


বরিশালে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে যোগাযোগ ও সামাজিক উদ্বুদ্ধকরণ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে শুক্রবার। শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ অডিটোরিয়ামে প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগ আয়োজিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার।
শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়া রোধে আগামী মাসের মধ্যে শতভাগ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মিড ডে মিল চালু করবেন বলে জানান মন্ত্রী।
তিনি বলেন,‘‘ নিন্ম মধ্যম আয়ের এ দেশে কেউ আর এখন না খেয়ে থাকেনা। তাহলে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম দুপুরবেলা না খেয়ে থাকবে কেন?’’ বাবা-মায়েদের যেরকম সামর্থ্য আছে তা দিয়ে বাচ্চাদের খাবার দেওয়ার পরামর্শ দেন মোস্তাফিজুর রহমান।
মন্ত্রী শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন,‘‘আমাদের শিক্ষার্থীদের অনেক ভালো সক্ষমতা আছে। আপনারা শুধু তাদের টেক্সটবই পড়াবেন না। তাদের সকল ক্ষেত্রে গাইড করবেন। যাতে তারা শুধু ভালো শিক্ষিত না হয়ে একইসাথে ভালো মানুষ হয়।’’ শিক্ষকদের সমাজের নেতা হতে উদ্ধুদ্ধ করেন মন্ত্রী।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো. আবু হেনা মোস্তফা কামাল।
পাঠ্যবইয়ের বিভ্রাট নিয়ে শিক্ষকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, ২০১৯ সালের ভেতর প্রাথমিক স্তরের সকল বই হবে ত্রুটিমুক্ত। মিড ডে মিল সামাজিকভাবে চালুর কারনে সরকারের ২৪ হাজার কোটি টাকা বেঁচে গেছে বলে জানান শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক।
মুক্ত আলোচনায় সরকারি কর্তকর্তা ও শিক্ষকবৃন্দ মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিতকরণে তাদের পরামর্শ মন্ত্রীর কাছে তুলে ধরেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. গিয়াসউদ্দিন আহমেদ, যুগ্ম সচিব সাবের হোসেন, যুগ্ম সচিব বিজয় ভুষন পাল, বরিশালের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো. নুরুল আলম, বরিশালের জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টুসহ অন্যরা।

বরিশাল নিউজ/এমটি ইসলাম

Subscribe to the newsletter

Fames amet, amet elit nulla tellus, arcu.