জানুয়ারি ১৭, ২০১৮

পা কাটা মামলায় ডাকাত সরদারের যাবজ্জীবন

গ্রাম পুলিশের পা কাটা মামলায় ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার উত্তর তাঁরাবুনিয়া গ্রামের ডাকাত বিলকু হাওলাদারকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়াও ডাকাত দলের আরো তিনজনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ বজলুর রহমান মঙ্গলবার এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত বিলকুকে যাবজ্জীবন ছাড়াও আরো দুটি ধারায় ১২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং ১৫ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো তিন মাস সাজা প্রদান করা হয়েছে।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার উত্তর তাঁরাবুনিয়া গ্রামের গ্রাম পুলিশ মনোতোষ চন্দ্র হাওলাদার কঠোর পাহারা দিয়ে ডাকাতদের ডাকাতি করতে বাধা দিতেন। এতে ক্ষিপ্ত ছিলেন সংঘবদ্ধ একদল ডাকাত। ২০১১ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি রাতে ডাকাত সরদার বিলকু হাওলাদারের নেতৃত্বে একদল ডাকাত গ্রাম পুলিশ মনোতোষ চন্দ্র হাওলাদারের ঘরে প্রবেশ করে। তাকে কুপিয়ে শরীর থেকে তার ডান পা বিচ্ছিন্ন করে দেয় ডাকাত দল। এ ঘটনায় মনোতোষ চন্দ্র হাওলাদার বাদী হয়ে রাজাপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করে। এরপরে ২০১১ সালের ৩১ জুলাই তদন্ত শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা রাজাপুর থানার উপপরিদর্শক আবদুল হালিম। আদালত ৯ জন সক্ষীর স্বাক্ষ্যগ্রহণ শেষে এ রায় ঘোষণা করেন। রাস্ট্র পক্ষে অতিরিক্ত সরকারি কৌসুলি এম আলম খান কামাল এবং আসামিদের পক্ষে নাসির উদ্দিন কবির মামলা পরিচালনা করেন।

Subscribe to the newsletter

Fames amet, amet elit nulla tellus, arcu.