শ্রম আইন বাস্তবায়নের দাবিতে বরিশালে সংবাদ সম্মেলন করে জেলা হোটেল রেস্টুরেন্ট মিষ্টি বেকারী শ্রমিক ইউনিয়ন-বরিশাল নিউজ


নিয়োগ পত্র, পরিচয় পত্র ও ১০ হাজার টাকা মূল মজুরিসহ শ্রম আইন বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছে বরিশাল জেলা হোটেল রেস্টুরেন্ট মিষ্টি বেকারী শ্রমিক ইউনিয়ন।
বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বুধবার সংবাদ সম্মেলন করে তারা এই দাবি জানান।

সংগঠনের সভাপতি নান্নু মিয়া তার লিখিত বক্তব্যে বলেন,  নতুন মজুরী কাঠামো ঘোষণার দাবিতে দেশব্যাপী আন্দোলন-সংগ্রামের ফলশ্রুতিতে সরকার শ্রমিকদের জন্য মজুরি বোর্ড গঠন করলেও প্রকৃত শ্রমিক প্রতিনিধি না নিয়ে সরকার দলীয় লোক নিয়ে মজুরি বোর্ড গঠন করে। এই মজুরি বোর্ড ও মজুরি কাঠামোর প্রেক্ষিতে দেশব্যাপী শ্রমিকরা আপত্তি জানালেও মালিকদের যোগসাজসে আপত্তি আমলে না নিয়ে খসড়া গেজেটের মজুরি কাঠামোই চূড়ান্ত করে। যে মজুরি কাঠামো ঘোষণা করা হয়েছে তা দিয়ে আজকের দিনে শ্রমিকদের জীবন চালানো অসম্ভব। বিগত গেজেটের মতই এই গেজেট বাস্তবায়নেও মালিকদের তৎপরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। এমতাবস্থায় ১০ হাজার টাকা মূল মজুরি ঘোষণা ও শ্রম আইন বাস্তবায়নে আন্দোলন সংগ্রাম ছাড়া বিকল্প কোনো পথ নেই।

তিনি বলেন, হোটেল শ্রমিক হিসেবে এদেশের শ্রম আইনে সকল সুযোগ সুবিধা পাওয়ার কথা থাকলেও শ্রমিকরা এই সকল সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত। এমনকি কাক ডাকা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত কাজ করেও ন্যায়সংগত মজুরি থেকে বঞ্চিত। এখনও ৪/৫ হাজার টাকা নিন্মতম মজুরীতে কাজ করাতে বাধ্য করা হয়। শ্রম আইনে ৮ ঘন্টা কাজের পর অতিরিক্ত কাজের জন্য দ্বিগুন মজুরীর আইন থাকলেও সেই নিয়মের কোনো তোয়াক্কা নেই। এছাড়া শ্রম আইন ২০০৬ এর ৫ ধারায় শ্রমিকদের নিয়োগপত্র ও পরিচয়পত্র বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। কিন্তু মালিকরা শ্রম আইনের কোনো ধারাই মানেন না। পরিচয়পত্র না থাকায় গভীর রাতে কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী হাতে হয়রানীর শিকার হতে হয়।
হোটেল শ্রমিকরা সংবাদ সম্মেলনে তাদের নিন্মতম মজুরী ১০ হাজার টাকা, চিকিৎসা ও যাতায়াত ভাতা প্রতিমাসে তিন হাজার টাকা এবং প্রতিবছর ১৫ ভাগ হারে ইনক্রিমেন্ট দেয়া, সপ্তাহে দেড়দিন ছুটি প্রদানসহ বিভিন্ন দাবি উত্থাপন করেন।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল জেলা হোটেল রেস্তোরা সুইটমিট শ্রমিক ইউনিয়নের সিনিয়র সহ সভাপতি মো. হারুন মল্লিক, সাধারণ সম্পাদক আজিজুল আলম সাইদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. শাহীন হাওলাদার, সহ সাধারণ সম্পাদক বাবর হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক বাদল হাওলাদার, প্রচার সম্পাদক মো. রাসেল প্রমূখ।
বরিশাল নিউজ/এম হাসান