নভেম্বর ১৭, ২০২২

দালাল গ্রেপ্তারের দাবিতে অ্যাম্বুলেন্স বন্ধ রাখার আল্টিমেটাম

অ্যাম্বুলেন্স দালালদের গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে বরিশাল জেলা অ্যাম্বুলেন্স মালিক সমবায় সমিতি। অন্যথায় অনির্দিষ্টকালের জন্য অ্যাম্বুলেন্সে রোগী ও লাশ পরিবহন বন্ধ রাখার আল্টিমেটাম দিয়েছে তারা।

তারা বরিশাল শের-ই বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালের সামনে অ্যাম্বুলেন্স দালাল চক্রের প্রধান নাসির খান ও তার সহযোগিদের ২০ নভেম্বরের মধ্যে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান। অন্যথায় আগামী ২১ নভেম্বর থেকে আল্টিমেটাম কার্যকর করা হবে বলেন তারা। 

বরিশাল প্রেসক্লাবে বৃহস্পতিবার, ১৭ নভেম্বর সংবাদ সম্মেলনে তারা এ আল্টিমেটাম দেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বরিশাল অ্যাম্বুলেন্স মালিক সমবায় সমিতি লিমিটেডের উপদেষ্টা সদস্য জাকির হোসেন বলেন, শেবাচিম হাসপাতালের সামনে রোগী পরিবহনের জন্য একমাত্র বৈধ সংগঠন বরিশাল অ্যাম্বুলেন্স মালিক সমবায় সমিতি লিমিটেড। এ সংগঠনের অধীনে ১৬০টি অ্যাম্বুলেন্স রয়েছে। যারমধ্যে প্রথম সারির অ্যাম্বুলেন্স রয়েছে ৬৫টি।

তিনি আরও বলেন, দীর্ঘদিন থেকে অ্যাম্বুলেন্স ব্যবসায় নাসির খান, মোসলেম খানসহ ১০/১২ জন দালাল চক্র যাদের কোনো অ্যাম্বুলেন্স নেই, তারা অ্যাম্বুলেন্স মালিক, চালক ও হেলপারদের জিম্মি করে রেখেছে। দালাল চক্রটি আইনের তোয়াক্কা না করে তাদের খেয়াল খুশিমত কৌশলে রোগী ও তার স্বজনদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, দালাল চক্রটি রোগীর স্বজনদের কাছ থেকে ভাড়ার চুক্তি নিয়ে ৪০ শতাংশ টাকা নিজেরা হাতিয়ে নেয়। ফলে রোগী পরিবহনে অ্যাম্বুলেন্স মালিকদের পথে বসার উপক্রম হয়ে দাঁড়িয়েছে। সংবাদ সম্মলনে সংগঠনের সভাপতি ফিরোজ আলম, সহসভাপতি নিয়াজ মোর্শেদ, দপ্তর সম্পাদক রেজাউল করিম শাকিল, সদস্য হুমায়ুন কবীর, মাইনুল ইসলাম খানসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বরিশালনিউজ/ স্টাফ রিপোর্টার

Subscribe to the newsletter

Fames amet, amet elit nulla tellus, arcu.