বরিশাল-ঝালকাঠি-খুলনাসহ ছয় রুটে সরাসরি বাস চলাচল এবং বরিশাল-বরগুনা-চান্দুখালী রুটের বাস শ্রমিকদের মারধর, চাঁদাবাজি এবং মহাসড়কে অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধের দাবিতে বরিশালে মানববন্ধন করেছে বরিশাল-পটুয়াখালী -বরগুনা মালিক -শ্রমিক সমন্বয় পরিষদ।
নগরীর রুপাতলী মিনিবাস টার্মিনাল প্রাঙ্গণে সোমবার দুপুরে তারা এই মানববন্ধন এবং বিক্ষোভ মিছিল করেন। একই দাবিতে মঙ্গলবারও তাদের বিক্ষোভ কর্মসূচী রয়েছে।
বরিশাল-পটুয়াখালী বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাওছার হোসেন শিপন বলেন, সমন্বয় পরিষদ গত ৮ মার্চ সভা করে ১৩ মার্চের মধ্যে এই দাবি মেনে নেয়ার আল্টিমেটাম দিয়েছিল । অন্যথায় আগামী ১৪ মার্চ থেকে বরিশাল-কুয়াকাটা, বরিশাল-খুলনা, বরিশাল-বরগুনা, বরিশাল-পিরোজপুর সহ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের অর্ধ শতাধিক রুটে অর্নিদিষ্টকালের বাস ধর্মঘটের ঘোষণা দেয় তারা। তিনি আরো বলেন,ঝালকাঠি বাস মালিক সমিতি নলছিটি সীমানের রাস্তায় বাস চলাচলের যে দাবি তুলেছে তা অযৌক্তিক।

উল্লেখ্য,ঝালকাঠি বাস মালিক সমিতি বরিশাল-পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহা সড়কে তাদের এলাকায় বাস চালানোর দাবি জানিয়ে আসছে। এই দাবিতে গত জানুয়ারি মাস থেকে তারা রুপাতলী বাস টার্মিনাল থেকে বাস না ছেড়ে তিন কিলোমিটার দূরে রায়পুরা নামক স্থানে বাসস্টান্ড নির্মান করে বাস চলাচল নিয়ন্ত্রণ করছে। এরফলে রুপাতলী টার্মিনাল থেকে কোন বাস সরাসরি দক্ষিণাঞ্চলের রুটগুলোতে যেতে পারছে না।
একারণে যাত্রীদেরও আলাদা যানবাহনে করে রায়পুরা যেতে হচ্ছে। এতে যাত্রীদের অতিরিক্ত সময় ব্যয় হচ্ছে। যাত্রীরা মালিক সমিতির এই দ্বন্দ্বের অবসান চায়।
বরিশাল নিউজ/এমএম হাসান