জানুয়ারি ১৬, ২০১৮

খালে পাওয়া শিশুটি এখন বাবার কোলে

খালের কচুরীপানার উপর থেকে উদ্ধার হওয়ার চারদিন পর ১৯ মাস বয়সী শিশু হাফিজকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে সমাজসেবা অধিদপ্তর। আগৈলঝাড়ার গৈলায় অবস্থিত বিভাগীয় বেবী হোম চত্বরে মঙ্গলবার সকালে শিশু হাফিজকে তার বাবা নজরুল প্যাদার কাছে হস্তান্তর করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশ্রাফ আহম্মেদ রাসেল।
শিশুটির বাবা জানান, গৌরনদী উপজেলার সরিকল ইউনিয়নের দক্ষিণ সাকোকাঠী গ্রামের বাসিন্দা দিনমজুর নজরুল প্যাদা তার হারিয়ে যাওয়া ১৯মাস বয়সের একমাত্র শিশু হাফিজের ফিরে পেয়ে আনন্দে আপ্লুত হয়ে পরেন। বলেন, তাদের সংসারে চার মেয়ের পর একমাত্র ছেলে হাফিজ। তার স্ত্রী নাসিমা বেগম দীর্ঘদিন একজন মানসিক ভারসাম্যহীন রোগী। অর্থাভাবে তার চিকিৎসা করানো সম্ভব হচ্ছেনা। গত ১২ জানুয়ারি শিশু হাফিজকে নিয়ে তার মা নাসিমা বেগম বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর হাফিজ নিখোঁজ হয়। ছেলে নিখোঁজের বিষয়ে তার মা নাসিমা বেগম কোন উত্তর দিতে পারেনি। সূত্রে আরও জানা গেছে, বাড়ি থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরত্বে চন্দ্রহার গ্রামের একটি খালের কচুরীপানার উপর ভাসতে দেখে স্থানীয়রা শিশুটিকে উদ্ধার করে। ওইদিনই শিশুটিকে গৌরনদী থানা পুলিশের কাছে হন্তান্তরের পর বেবী হোমে শিশুটিকে হস্তান্তর করা হয়। শিশুটির সন্ধান পেয়ে তার বাবা নজরুল প্যাদা বেবী হোমের কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগের পর আইনী প্রক্রিয়া শেষে মঙ্গলবার সকালে শিশু হাফিজকে আনুষ্ঠানিকভাবে তার বাবার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
বরিশাল নিউজ/শামীম

Subscribe to the newsletter

Fames amet, amet elit nulla tellus, arcu.