কানাডায় প্রথম বাংলাদেশি এমপি ডলি বেগম

বরিশাল নিউজ ডেস্ক।। কানাডার ওন্টারিওর প্রাদেশিক নির্বাচনে প্রথম কোনো বাংলাদেশি হিসেবে জয় পেয়েছেন ডলি বেগম। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ও ক্ষমতাসীন ‘প্রগ্রেসিভ কনজারভেটিভস’ (পিসি) দলের প্রার্থীর চেয়ে প্রায় ছয় হাজার ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হন তিনি। তবে ডলি বেগমের সবচেয়ে কৃতিত্ব হলো, টানা ১৫ বছর পর ওই আসনটি লিবারেল দলের হাতছাড়া হলো।গত বৃহস্পতিবার এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

ডলি বেগমের বাড়ি মৌলভীবাজার জেলায়। খুব ছোটবেলায় মা-বাবা এবং এক ছোট ভাইয়ের সঙ্গে কানাডায় পাড়ি জমান তিনি। শিক্ষাজীবনে বাংলাদেশি এই রাজনীতিবিদ টরন্টো ইউনিভার্সিটি থেকে স্নাতক করেছেন। স্নাতকোত্তর করেছেন ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন থেকে। কর্মজীবনে ‘স্কারবোরো হেলথ কোয়ালিশন’র কো-চেয়ার এবং ‘ওয়ার্ডেন উডস কমিউনিটি সেন্টার’র ভাইস চেয়ার ছিলেন তিনি।

ওন্টারিওর প্রাদেশিক নির্বাচনে ডলি বেগম মনোনয়ন পান ‘নিউ ডেমোক্রেটিক পার্টি’ (এনডিপি) থেকে। তিনি ‘স্কারবোরো সাউথ-ওয়েস্ট’ আসনের প্রার্থী ছিলেন। গত বৃহস্পতিবারের নির্বাচনে ডলি বেগম ১৯ হাজার ৭৫১ ভোট পান। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী (পিসি) গ্যারি এলিস পান ১৩ হাজার ৫৯২ ভোট। নির্বাচনে আট হাজার
২১৫ ভোট পেয়ে তৃতীয় হন লিবারেল দলের প্রার্থী লরেনজো বেরারদিনেত্তি। এর আগে সাবেক এই পুলিশ কর্মকর্তা ২০০৩ সাল থেকে টানা তিনবার প্রাদেশিক পার্লামেন্টের সদস্য নির্বাচিত হন।

নির্বাচনী প্রচারণায় ডলির স্লোগান ছিল, ‘আমাকে নির্বাচিত করুন, আপনাদের হতাশ হতে হবেনা।’
কালের কণ্ঠ ডেস্ক