ভারত-পাকিস্তান ফাইনালের পার্টি নষ্ট করে দেবেন বলে হুঁশিয়ারি করেছিলেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক জস বাটলার। অ্যাডিলেডে বৃহস্পতিবার কথা রাখলেন। রোহিত শর্মাদের গুঁড়িয়ে ফাইনালে উঠালেন দলকে।

১৩ নভেম্বর মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে পাকিস্তানের মুখোমুখি হচ্ছে ইংল্যান্ড। ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়ে ৬ বছর পর ফাইনালে তারা। অন্যদিকে নিউ জিল্যান্ডকে হারিয়ে ১৩ বছর পরে ফাইনালে পাকিস্তান।

টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছিলেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক বাটলার । ৬ উইকেট হারিয়ে ভারত করে ১৬৮ রান।

কিন্তু বাটলার ও অ্যালেক্স হেলস জুটি কোনও বাধাবিঘ্ন ছাড়াই দলকে জয়ের পথে নিতে থাকেন। ২৮ বলে ১ চার ও ৫ ছয়ে ফিফটি করেন হেলস। ৩৬ বলে ৭ চার ও ১ ছয়ে পঞ্চাশ ছোঁন বাটলারও।

শুরু থেকে ঝড় তোলেন দুই ব্যাটসম্যান। ইংল্যান্ডকে ২৯ বলে প্রথম পঞ্চাশ এনে দেন। একশতে তারা পৌঁছায় মাত্র ৬১ বলে। দেড়শ হয় ৮৩ বলে। আর কাউকেই ব্যাট করতে দেননি বাটলার ও হেলস। ৪৭ বলে চার চার ও সাত ছয়ে ৮৬ রানে অপরাজিত ছিলেন হেলস। বাটলার ৪৯ বল খেলে ৯ চার ও ৩ ছয়ে ৮০ রানে খেলছিলেন। চার ওভার হাতে রেখে জিতে যায় ইংল্যান্ড। ১৬ ওভারে ১৭০ রান করেছে তারা।

২০১০ সালে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ইংল্যান্ড। এবার দ্বিতীয় শিরোপার লড়াই হবে পাকিস্তানের সাথে।  ছয় বছর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে হয়েছিল দ্বিতীয় লড়াই। তবে রানার আপ হয়েছে তখন।

বরিশালনিউজ/ ডেস্ক নিউজ